Share
ডেঙ্গু প্রতিরোধে জরুরি ভিত্তিতে ৫৩ কোটি টাকা বরাদ্দ

ডেঙ্গু প্রতিরোধে জরুরি ভিত্তিতে ৫৩ কোটি টাকা বরাদ্দ

ডেঙ্গু প্রতিরোধে জরুরি ভিত্তিতে ৫৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ১৫ কোটি টাকা।

স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম আজ বুধবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘ডেঙ্গুর উৎপত্তি এডিস মশা নিধনে আমরা প্রতিদিনই নতুন নতুন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হচ্ছি। গতবার যে ওষুধে এ মশা দমন হতো, এবার সেই ওষুধ কাজ করছে না। ফলে নতুন ওষুধ আনতে হচ্ছে।’

অর্থ বরাদ্দের  কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘ডেঙ্গু দমনে আমরা জরুরি ভিত্তিতে ৫৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছি। শিগগিরই এ টাকা ছাড় দেওয়া হবে। এ টাকার মধ্যে ঢাকার দুই সিটির বাইরের ১০টি সিটি করপোরেশনের জন্য আট কোটি টাকা এবং দেশের সব পৌরসভার জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ৩০ কোটি টাকা।’

এর আগে মন্ত্রী ক্লাইমেট চেইঞ্জ জার্নালিস্ট ফোরামের নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এ সময় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. হেলাল উদ্দিন, ক্লাইমেট চেইঞ্জ জার্নালিস্ট ফোরামের সভাপতি কাওসার আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

পরিচ্ছন্ন নগরী ও নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত  করতে ঢাকার দুই  মেয়র ব্যর্থ হয়েছেন বলে আপনি মনে করেন কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘কাঙ্ক্ষিত সেবা দিতে ঢাকার দুই মেয়র সফল হয়েছেন, এটা বলা যাবে না। নিশ্চয়ই তাদের আরো  অনেক কিছু করার ছিল। তবে পেছনের দিকে তাকালে অগ্রগতিও কমন নয়। ঢাকায় বৃষ্টি হলে এখন আর হাঁটু পরিমাণ পানি জমে না।’

মন্ত্রী বলেন, ‘পরিচ্ছন্ন নগরীর দিক দিয়ে অন্যান্য শহরের তুলনায় আমরা অনেক পিছিয়ে আছি। ভবিষ্যতে হয়তো আমরাও একটি পরিচ্ছন্ন নগরীর সুবিধা পাব।’

ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতা তৈরিতে তিনি সবার সহযোগিতা কামনা করে বলেন, ‘নাগরিক হিসেবে আমাদেরও দায়িত্ব রয়েছে।’ ‘তোমার বাড়ি আমার বাড়ি, আমার বাড়ি তোমার বাড়ি’ স্লোগান সামনে রেখে সবাই পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালালে একটি পরিচ্ছন্ন নগরী গড়ে তোলা সম্ভব বলে মনে করেন মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

Leave a Comment